তাইপে ১০১

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তাইপে ১০১
Taipei101.portrait.altonthompson.jpg
তাইপে ১০১ ছিল বিশ্বের উচ্চতম ভবন ২০০৪ থেকে ২০১০ পর্যন্ত.*
যে ভবনটি এর পূর্বে সর্বোচ্চ ভবন ছিল পেট্রোনাস টুইন টাওয়ার
যে ভবনটি এটিকে উচ্চতায় ছাড়িয়ে গেছে বুর্জ খলিফা
তথ্য
অবস্থান জিনই জেলা, তাইপে, তাইওয়ান
বর্তমান অবস্থা সম্পূর্ণ
নির্মিত ১৯৯৯-২০০৪
প্রবেশ ৩১শে ডিসেম্বর, ২০০৪
ব্যবহার মিশ্র ব্যবহার: যোগাযোগ, বৈঠক, ফিটন্স সেন্টার, পাঠাগার, পর্যবেক্ষণ, দপ্তর, রেস্টুরেন্ট, খুচুরা বিক্রি
উচ্চতা
অ্যান্টেনা/চুড়া ৫০৯.২ মি (১,৬৭০.৬ ফু)
রুফ ৪৪৯.২ মি (১,৪৭৩.৮ ফু)
সর্বোচ্চতল ৪৩৯.২ মি (১,৪৪০.৯ ফু)
কারিগরী বর্ণনা
তলসংখ্যা ১০১
ফ্লোরএরিয়া ৪,১২,৫০০ মি (৪৪,৪০,১০০ ফু)
লিফ্‌টের সংখ্যা 61 Toshiba/KONE elevators, including double-deck shuttles and 2 high speed observatory elevators)
ব্যয় NT$ ৫৮ বিলিয়ন
(USD $ 1.80 billion)[১]
প্রতিষ্ঠানসমূহ
স্থপতি C.Y. Lee & partners
স্থাপত্য
বাস্তুকার
Thornton Tomasetti
কন্ট্রাকটর KTRT Joint Venture
মালিক Taipei Financial Center Corporation
ব্যবস্থাপনা Urban Retail Properties Co.

*Fully habitable, self-supported, from main entrance to highest structural or architectural top; see the list of tallest buildings in the world for other listings.

তাইপে ১০১ (ইংরেজি: Taipei 101) একটি সুপরিচিত বহুতল ভবন যা তাইওয়ানের, জিনই জেলার, তাইপে শহরে অবস্থিত। এর পূর্বের নাম ছিল তাইপে ওয়ার্ল্ড ফাইন্যান্সিয়াল সেন্টার। ২০০৪ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত এটি ছিল বিশ্বের সর্বোচ্চ ভবন। ২০১০ সালে উদ্বোধনের পর বুর্জ খলিফা এর স্থলাভিষিক্ত হয়। তাইপে ১০১ এর নকশা প্রনয়ন করেছে সি ওয়াই লি এন্ড পার্টনার্স এবং নির্মাণ করেছে কেটিআরটি জয়েন্ট ভেঞ্চার। উদ্বোধনের পর থেকে এই ভবনটি আধুনিক তাইওয়ানের প্রতিচ্ছবি হিসাবে বিবেচিত হয়ে আসছে এবং এটি ২০০৪ সালের Emporis Skyscraper Award অর্জন করে। তাইপে ১০১ থেকে করা আতশবাজির দৃশ্য ইংরেজি নববর্ষের অনুষ্ঠানে সারা বিশ্বে সম্প্রচারিত হয়। এছাড়াও এ ভবনটি ভ্রমন বিষয়ক জার্নাল আর আন্তর্জাতিক মিডিয়াতে প্রায়শই স্হান পায়।

তাইপে ১০১ - এ ভূমির ওপর ১০১ টি তলা রয়েছে এবং মাটির নিচে রয়েছে ৫ টি তলা।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]