ড্যানিয়েল বেইলি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আমেরিকান রাজনীতিবিদ, Daniel A. Bailey দেখুন।
ড্যানিয়েল বেইলি
২০১০ ইন্ডোর প্রতিযোগিতার ব্রোঞ্জ মেডেল নিয়ে বেইলি
ব্যক্তিগত তথ্য
জাতীয়তা অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা
জন্ম (১৯৮৬-০৯-০৯) ৯ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ২৭)
উচ্চতা ১৭৯ সেমি (৫ ফু ১০ ইঞ্চি)
ওজন ৬৮ কেজি (১৫০ পা)
ক্রীড়া
ক্রীড়া দৌড়বাজী
সাফল্য ও খেতাব
ব্যক্তিগত সেরা

১০০মিটার: ৯.৯১

২০০মিটার: ২০.৫১

ড্যানিয়েল এভার্টন বেইলি (জন্ম ৯ই সেপ্টেম্বর ১৯৮৬) অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার একজন পুরুষ স্প্রিন্টার। তাঁর পছন্দের বিভাগ হল ১০০মিটার।[১] তিনি ২০০৪ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে তাঁর দেশের পতাকা বাহক ছিলেন এবং ২০০৮ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ১০০মিটারে সেমিফাইনালিস্ট ছিলেন।

২০০৯ সালে তিনি পাদপ্রদীপের আলোয় আসেন IAAF গোল্ডেন লীগ প্রতিযোগিতায় ১০০মিটার জিতে ও ২০০৯ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে চতুর্থ স্থান পেয়ে। ২০১০ IAAF বিশ্ব ইন্ডোর চ্যাম্পিয়নশিপে ৬০মিটারে তিনি ব্রোঞ্জ পদকলাভ করেন। এছাড়া ক্যারিবীয় আঞ্চলিক পর্যায়েও পদক লাভ করেন। ১০০মিটারে তাঁর ব্যক্তিগত সেরা ৯.৯১সেকেন্ড হল অ্যান্টিগুয়ার জাতীয় রেকর্ড

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার হয়ে ২০০৪ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকস, ২০০৬ কমনওয়েল্থ গেমস২০০৮ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে বেইলি অংশগ্রহণ করেন। বেইজিং-এ তিনি ১০০মিটার দৌড়ে অংশ নিয়ে হিটে উসেইন বোল্টের থেকে সেকেন্ডের মাত্র চার শতাংশ সময়ের ব্যবধানে ১০.২৪সেকেন্ড সময়ে দ্বিতীয় হন। বেইলি কোয়ার্টার ফাইনালে এই সময় আরও ভালো করেন (১০.২৩সেকেন্ড)। কিন্তু, যথাক্রমে আসাফা পাওয়েল, ওয়াল্টার ডিক্সডেরিক অ্যাটকিন্সের পরে চতুর্থস্থান অধিকার করায় তিনি আর এগোতে পারেননি।[১]

২০০৯ সালের মরশুম বেইলি দারুণভাবে শুরু করেন। মে মাসের শুরুর দিকেই তিনি ১০০মিটার বিভাগে তাঁর ব্যক্তিগত সেরা ১০.০২সেকেন্ড ও বাতাসের সাহায্যে ৯.৯৩সেকেন্ড সময় করেন। তিনি দক্ষিণ আমেরিকান প্রতিযোগিতায় এই মহাদেশের প্রথম দৌড়বীর হিসাবে দশ সেকেন্ডের কম সময়ে ১০০মিটার দৌড় শেষ করে এক অসাধারণ রেকর্ড গড়েন। বাতাসের সাহায্য পেলেও, ৯.৯৯সেকেন্ডের এই দৌড় তাঁর ব্যক্তিগত সেরা ছিল। এরপর তিনি এই সময় আরও কমান রোমে গোল্ডেন গালা প্রতিযোগিতায় ৯.৯৬সেকেন্ড সময় করে এবং এক সপ্তাহের মধ্যেই প্যারিসে তাঁর অনুশীলন সহযোগী উসেইন বোল্টের পরে আরও ভালো সময় ৯.৯১সেকেন্ড করে দ্বিতীয় হন। এই সময় অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার জাতীয় রেকর্ড।[২]

২০১০ IAAF বিশ্ব ইন্ডোর চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি ৬০মিটারে ব্রোঞ্জ পদক জেতেন। ৬.৫৭সেকেন্ডে শেষ করে তিনি এই প্রতিযোগিতায় অ্যান্টিগুয়ার হয়ে প্রথম পদক জেতেন।[৩] বেইলি ২০১০ সালের IAAF ডায়ামন্ড লীগে অংশগ্রহণ করেন। ১০০মিটার দৌড়ে তিনি ব্রিটিশ গ্র্যাঁ প্রিঅ্যাডিডাস গ্র্যাঁ প্রি (এই প্রতিযোগিতায় তিনি বাতাসের সাহায্য নিয়ে ৯.৯২সেকেন্ড সময় করেন।)উভয়েই তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। তিনি মেমোরিয়াল ভ্যান ড্যামে চতুর্থ হন এবং প্যারিসে অনুষ্ঠিত মিটিং আরিভাতে মরশুমের সেরা পুরো ১০সেকেন্ড সময় করে চতুর্থ হন।[৪] এবছরে তাঁর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সাফল্য ছিল ২০১০ CAC গেমসে, যেখানে চুরান্ডি মার্টিনার পিছনে শেষ করে তিনি ১০০মিটারে রৌপ্য পদক জয় করেন, এবং ২০১০ IAAF মহাদেশীয় কাপ, যেখানেও তিনি ক্রিস্টোফ লেমেইটারের পিছনে দ্বিতীয় হন। এছাড়া তিনি মহাদেশীয় কাপ বিজয়ী আমেরিকাস রিলে দলের লিড-অফও ছিলেন।[৫][৬]

২০১১ সালের ইন্ডোর মরশুমে অংশ নিতে না পারার দরুন তিনি এপ্রিলে জামাইকাতে UTech ক্লাসিকে ২০০মিটার বিভাগে ব্যক্তিগত সেরা ২০.৫১সেকেন্ড সময়ে মরশুম শুরু করেন।[৭] এর পরপরই জামাইকা আমন্ত্রণমূলকে বাতাসের সহযোগিতায় ১০০মিটার বিভাগে ৯.৯৪সেকেন্ড সময় করেন। এরপর তিনি তাঁর অনুশীলন সহযোগী য়োহান ব্লেককে (গ্লেন মিলস]]-এর আরেক ছাত্র) নিয়ে ইউরোপ যাত্রা করেন। এই সময়ের সেরা সাফল্য হল স্ট্রাসবার্গে ৯.৯৭সেকেন্ডের জয়। এটি ছিল তাঁর বিদেশে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তুতি: "এখানে আমি শিখলাম কি করে নতুন পরিবেশে ও অপরিচিত খাদ্যাভ্যাসে মানিয়ে নেওয়া যায়।"[৮]

ব্যক্তিগত সেরা[সম্পাদনা]

বিভাগ সময় (সেকেন্ড) স্থান তারিখ
৬০মিটার ৬.৫৪ বার্মিংহাম, যুক্তরাজ্য ২১শে ফেব্রুয়ারী ২০০৯
১০০মিটার ৯.৯১ প্যারিস, ফ্রান্স ১৭ই জুলাই ২০০৯
২০০মিটার ২০.৫১ কিংস্টন, জামাইকা ১৬ই এপ্রিল ২০১১
  • সকল তথ্য IAAF থেকে নেওয়া।[৯]

সাফল্য[সম্পাদনা]

  • ২০১০ IAAF বিশ্ব ইন্ডোর চ্যাম্পিয়নশিপ – ব্রোঞ্জ পদক (৬০মিটার)
  • ২০০৫ প্যান আমেরিকান জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপ – ব্রোঞ্জ পদক (২০০মিটার)
  • ২০০৪ বিশ্ব জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপ – চতুর্থ স্থান (১০০মিটার)
  • ২০০৩ বিশ্ব যুব চ্যাম্পিয়নশিপ – চতুর্থ স্থান (২০০মিটার)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ Athlete biography: Daniel Bailey, beijing2008.cn, ret: Aug 26, 2008
  2. Biscayart, Eduardo (2009-05-25). Belém spectacular produces five world season leads – IAAF World Athletics Tour. IAAF. Retrieved on 2009-05-30.
  3. Landells, Steve (2010-03-13). EVENT REPORT – MEN's 60 Metres Final. IAAF. Retrieved on 2010-03-21.
  4. Daniel Bailey 2010. Tilastopaja. Retrieved on 2011-06-15.
  5. Robinson, Javier Clavelo (2010-07-26). Martina defends 100m title, Brathwaite dominates the sprint hurdles in Mayaguez – CAC Games, days 1 and 2. IAAF. Retrieved on 2011-06-15.
  6. Ramsak, Bob (2010-09-10). EVENT Report – Men's 100 Metres. IAAF. Retrieved on 2011-06-15.
  7. Foster, Anthony (2011-04-17). Blake beats Powell over 200m in Kingston. IAAF. Retrieved on 2011-06-15.
  8. Vazel, Pierre-Jean (2011-06-13). Bailey edges Blake 9.97 to 9.98 in Strasbourg. IAAF. Retrieved on 2011-06-15.
  9. Bailey Daniel biography. IAAF. Retrieved on 2009-05-30.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]