জিম গ্রে (কম্পিউটার বিজ্ঞানী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জেমস নিকোলাস "জিম" গ্রে
160x268px
জন্ম (১৯৪৪-০১-১২)জানুয়ারি ১২, ১৯৪৪[১]
সান ফ্রান্সিস্কো, ক্যালিফোর্নিয়া[২]
মৃত্যু (lost at sea) জানুয়ারি ২৮, ২০০৭(২০০৭-০১-২৮) (৬৩ বছর)
জাতীয়তা আমেরিকান
কর্মক্ষেত্র কম্পিউটার বিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠান আইবিএম, Tandem Computers, DEC, মাইক্রোসফট
প্রাক্তন ছাত্র ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলে
পিএইচডি উপদেষ্টা Michael Harrison[২]
পরিচিতির কারণ Work on database and transaction processing systems
উল্লেখযোগ্য পুরস্কার টুরিং পুরস্কার ১৯৯৮[৩]
জিম গ্রে

জেমস নিকোলাস গ্রে, বা জিম গ্রে (জন্ম ১৯৪৪, সমূদ্রে নিখোঁজ জানুয়ারি ২৮, ২০০৭) একজন মার্কিন কম্পিউটার বিজ্ঞানী। তিনি ১৯৯৮ সালে ডাটাবেইজ ও ট্রান্স্যাকশন প্রসেসিং এ অবদানের জন্য টুরিং পুরস্কার লাভ করেছিলেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

জিম গ্রে ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া অ্যাট বার্কলে থেকে প্রকৌশল গণিতবিদ্যায় (গণিত ও পরিসংখ্যান) ১৯৬৬ সালে স্নাতক, এবং ১৯৬৯ সালে কম্পিউটার বিজ্ঞানে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ছিলেন বার্কলে'র কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের প্রদত্ত প্রথম ডক্টরেট ডিগ্রির অধিকারী।

জিম গ্রে গবেষক ও সফটওয়ার নির্মাতা হিসাবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। এর মধ্যে রয়েছে আইবিএম, ট্যান্ডেম কম্পিউটার, এবং ডিজিটাল ইকুইপমেন্ট কর্পোরেশন। তিনি ১৯৯৫ সাল হতে মাইক্রোসফট রিসার্চের টেকনিকাল ফেলো হিসাবে কাজ করছিলেন। জিম গ্রে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ডাটাবেইজ ও ট্রান্সাকশন প্রসেসিং সিস্টেম এর উপরে কাজ করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে আইবিএম এর সিস্টেম আর (System R), মাইক্রোসফটের টেরাসার্ভার ও স্কাইসার্ভার। তাঁর সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য অবদানের মধ্যে রয়েছে ডাটাবেইজের মাল্টিপল গ্র্যানুলারিটি লকিং, দুই ধাপের ট্রান্সাকশন, এবং ডাটা কিউব অপারেটর। তিনি ভার্চুয়াল আর্থ তৈরীতে সহায়তা করেন।[৪][৫][৬][৭]

সমূদ্রে অন্তর্ধান[সম্পাদনা]

২০০৭ সালের জানুয়ারি ২৮ তারিখে জিম গ্রে তাঁর মৃত মায়ের অস্থিভষ্ম সাগরে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য সানফ্রান্সিস্কোর কাছের ফারালোন দ্বীপের অদূরে সমূদ্রে নিজের ৪০-ফুট দীর্ঘ ইয়টে করে একাকী সমূদ্রযাত্রায় রওনা হন, কিন্তু এর পরে তাঁর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। চার দিন ধরে মার্কিন উপকূলরক্ষীবাহিনী বিমান, হেলিকপ্টার ও নৌকার মাধ্যমে উদ্ধার কার্য চালিয়েও তাঁর বা নৌকাটির কোন হদিস বের করতে ব্যর্থ হয়। [৮][৯][১০][১১]

বই[সম্পাদনা]

  • Transaction Processing: Concepts and Techniques (with Andreas Reuter) (1993) ISBN 1-55860-190-2
  • The Benchmark Handbook: For Database and Transaction Processing Systems (1993) ISBN 1-55860-292-5

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "DeWitt Undergraduate CS Scholarship: Dr. James Gray"University of Wisconsin–Madison। সংগৃহীত 2010-01-18 
  2. ২.০ ২.১ Oral History Interview with Jim Gray (Synopsis and Transcript) at Charles Babbage Institute, University of Minnesota. 3 January 2002. Retrieved 2010-01-19.
  3. ডিওআই:10.1145/602382.602401
    This citation will be automatically completed in the next few minutes. You can jump the queue or expand by hand Jim Gray Turing Award lecture
  4. An Interview with Jim Gray June 2003, Interviewed by David A. Patterson
  5. Interview with Jim Gray by Marianne Winslett, for ACM SIGMOD Record, March 2003 as part of Distinguished Database Profiles
  6. Interview on MSDN Channel 9, Behind the Code, March 3, 2006
  7. Interview by Mark Whitehorn for The Register 30 May 2006
  8. "Coast Guard searches for missing SF boater: 63-year-old man failed to return from trip to Farallon Islands"San Francisco ChronicleJanuary 29, 2007 
  9. "Sea search for missing Microsoft scientist: No sign of S.F. man who set out alone for Farallon Islands in 40-foot sailboat"San Francisco ChronicleJanuary 30, 2007 
  10. "Search for missing sailor extends to Humboldt"San Francisco ChronicleJanuary 31, 2007 
  11. "Vast search off coast for data wizard"San Francisco ChronicleJanuary 31, 2007 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]