জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক
འཇིགས་མེད་གེ་སར་རྣམ་རྒྱལ་དབང་ཕྱུག
King of Bhutan
সময়কাল 14 December 2006 – present
অভিষেক 6 November 2008
পূর্বসূরী Jigme Singye Wangchuck
Heir presumptive Jigyel Ugyen Wangchuck
Prime Ministers
দাম্পত্য সঙ্গী Jetsun Pema (2011–present)
বাসগৃহ House of Wangchuck
পিতা Jigme Singye Wangchuck
মাতা Tshering Yangdon
জন্ম (১৯৮০-০২-২১) ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৮০ (বয়স ৩৪)
Dechencholing Palace, Bhutan
ধর্ম Buddhism

জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক (জন্ম: ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮০)),[১] ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে রাজত্ব করা বর্তমান রাজবংশের পঞ্চম রাজা। ২০০৬ সালে বাবা জিগমে সিংহে ওয়াংচুক সরে দাঁড়ালে ভুটানের রাজার দায়িত্ব পান জিগমে খেসার ওয়াংচুক।[২][৩]

লেখাপড়া[সম্পাদনা]

রাজা অক্সফোর্ড থেকে গ্রাজুয়েট করেছেন।[৩]

মুকুটপ্রাপ্তি[সম্পাদনা]

রাজা জিগমে ২০০৮ সালের নভেম্বরে অফিসিয়ালি মুকুটপ্রাপ্ত হন। তিনি রাজা হওয়ার পর ভুটানের রাজনীতিতে ব্যাপক বিবর্তন ঘটে। আধুনিক গণতন্ত্রের জন্য একটি নতুন সংবিধান প্রণয়ন করা হয়। নির্বাচন হয় এবং নতুন সরকার ক্ষমতায় আসে।[৩]

রাজকীয় বিয়ে[সম্পাদনা]

এক সাধারণ ঘরের মেয়ে জেটসান পেমার সঙ্গে জিগমে খেসার ওয়াংচুকের বিয়ে হয়। বিয়ের মূল অনুষ্ঠান হয় দেশটির প্রাচীন রাজধানী পুনাখায় সপ্তদশ শতাব্দীতে নির্মিত একটি সুরক্ষিত দুর্গে। রাজার চেয়ে ১০ বছরের ছোট জেটসান পেমা। অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রের উচ্চপর্যায়ের নেতা, বিদেশি কোনো রাজা-বাদশা বা বিখ্যাত কেউ উপস্থিত ছিলেন না।[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "A Legacy of Two Kings"। Bhutan Department of Information Technology। সংগৃহীত 6 November 2008 
  2. ২.০ ২.১ বিয়ে করলেন ভুটানের রাজা,অনলাইন ডেস্ক, দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ১৩-১০-২০১১ খ্রিস্টাব্দ।
  3. ৩.০ ৩.১ ৩.২ ৩.৩ ভুটানের পঞ্চম রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক আজ বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন,সংবাদ প্রতিদিন। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ১৩-১০-২০১১ খ্রিস্টাব্দ।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]