জন গুল্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জন গুল্ড
জন্ম ১৪ সেপ্টেম্বর, ১৮০৪
লাইম রেজিস, ডরসেট
মৃত্যু ৩ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮১
বেডফোর্ড স্কয়ার, লন্ডন
জাতীয়তা ইংলিশ
কর্মক্ষেত্র পক্ষীবিজ্ঞান
প্রভাবান্বিত চার্লস ডারউইন

জন গুল্ড (১৪ সেপ্টেম্বর, ১৮০৪-৩ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮১) একজন ইংলিশ পক্ষীবিদ। পাখিদের পুঙ্খানুপুঙ্খ ও বৈজ্ঞানিকভাবে সঠিক ছবি আঁকার জন্য তিনি পরিচিত। পাখি বিষয়ক অসংখ্য মনোগ্রাফ প্রকাশ করেছেন তিনি। স্ত্রী এলিজাবেথ গুল্ড এবং অ্যাডওয়ার্ড লিয়ার, হেনরি কন্সটানটাইন রিখটার, জোসেফ উলফ, উইলিয়াম ম্যাথিউ হার্ট প্রমুখ চিত্রকর ও পক্ষীবিজ্ঞানীর সহায়তায় তিনি প্রচুর পশুপাখির ছবি আঁকেন। এসব ছবির অনেকগুলো তাঁর নিজের প্রকাশিত মনোগ্রাফ ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রকাশনায় স্থান পেয়েছে। তাঁকে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষীবিজ্ঞানের জনক বলা হয়। তাঁর নামানুসারে অস্ট্রেলিয়ায় গুল্ড লিগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। গুল্ড ডারউইনের ফিঞ্চ নিয়ে গবেষণা করেন ও তাঁর প্রাপ্ত ফলাফল ডারউইনের প্রাকৃতিক নির্বাচন মতবাদকে সমর্থন করে। তাঁর এ আবিষ্কার ডারউইন তাঁর ''অন দ্য অরিজিন অব স্পিশিজ'' বইয়ে ব্যবহার করেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

গুল্ড ইংল্যান্ডের ডরসেটে লাইম রেজিসে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন তাঁর পিতামাতার প্রথম সন্তান। তাঁর পিতা ছিলেন একজন মালি। তাঁর পিতা সারের গিল্ডফোর্ডে একটি এস্টেটে কাজ পেয়ে যান। পরবর্তীতে ১৮১৮ সালে তিনি উইন্ডসরের রয়েল গার্ডেন্সে ফোরম্যানের দায়িত্ব পান। ছোটবেলায় গুল্ড মালি হিসেবে প্রশিক্ষণ লাভ করেন। তাঁর পিতার অধীনে ১৮১৮ থেকে ১৮২৪ পর্যন্ত তিনি উইন্ডসরে কর্মরত থাকেন। পরে উত্তর ইয়র্কশায়ারের রিপ্লি দূর্গে তিনি মালির দায়িত্বে অধিষ্ঠিত হন। একসময় চামড়া সংরক্ষণ শিল্পে তিনি বিশেষজ্ঞ হয়ে ওঠেন। ১৮২৪ সালে লন্ডনে তিনি চামড়া সংরক্ষণ ব্যবসার সাথে জড়িয়ে যান। সংরক্ষণবিদ্যায় তাঁর অভিজ্ঞতার কারণে ১৮২৭ সালে জ্যুলজিক্যাল সোসাইটি অব লন্ডন জাদুঘরের প্রথম কিউরেটর ও সংরক্ষক হিসেবে তিনি দায়িত্বপ্রাপ্ত হন।[১][২]

সৃষ্টিকর্ম[সম্পাদনা]

Source: Australian Museum Research Library
  • John Gould [1804-81], The birds of Asia; 1850-83 7 vols. 530 plates, Artists: J. Gould, H. C. Richter, W. Hart and J. Wolf; Lithographers: H. C. Richter and W. Hart; Parts 33-55 completed after Gould's death by R. Bowdler Sharpe; Vol VI :Artist and lithographer: W. Hart
  • John Gould [1804-81]; The birds of Australia; 1840-48. 7 vols. 600 plates; Artists: J. Gould and E. Gould; Lithographer: E. Gould
  • John Gould [1804-81]; The birds of Australia; Supplement 1851-69. 1 vol. 81 plates; Artists: J. Gould and H. C. Richter; Lithographer: H. C. Richter
  • John Gould [1804-81]; The Birds of Great Britain; 1862-73. 5 vols. 367 plates; Artists: J. Gould, J. Wolf, H.C. Richter and W. Hart; Lithographers: H. C. Richter and W. Hart
  • John Gould [1804-81]; The Birds of Great Britain; 1862-73. 5 vols. 367 plates; Artist: J. Wolf; Lithographer: H. C. Richter
  • John Gould [1804-81]; Birds of Europe; 1832–37. 5 vols. Drawn from nature & on stone by J. & E. Gould. Printed by Hullmandel.
  • John Gould [1804-81]; The birds of New Guinea and the adjacent Papuan Islands, including many new species recently discovered in Australia; 1875-88. 5 vols. 300 plates; Parts 13-25 completed after Gould's death by R. Bowdler Sharpe; Artists: J. Gould and W. Hart; Lithographer: W. Hart
  • John Gould [1804-81]; A monograph of the Odontophorinae, or partridges of America; 1844-50 1 vol. 32 plates; Artists: J. Gould and H. C. Richter; Lithographer: H. C. Richter
  • John Gould [1804-81]; A monograph of the Ramphastidae, or family of toucans; 1833-35. 1 vol. 34 plates; Artists: J. Gould, E. Gould, E. Lear and G. Scharf; Lithographers: E. Gould and E. Lear;
  • John Gould [1804-81]; A monograph of the Trochilidae, or family of humming-birds Supplement, completed after Gould's death by R. Bowdler Sharpe; 1880-87. 5 parts. 58 plates; Artists: J. Gould and W. Hart; Lithographer: W. Hart
  • John Gould [1804-81]; A synopsis of the birds of Australia, and the adjacent islands; 1837-38 1 vol. 73 plates; Artist and lithographer: E. Gould

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Waterhouse FH (1885)। The dates of publication of some of the Zoological Works of the late John Gould। R H Porter, London। 
  2. Russell, Roslyn (2011)। The Business of Nature: John Gould and Australia। National Library Australia। 

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • Chisholm, A. H., 1938 Out of the past: Gould material discovered. Victoria Naturalist 55:95-102.
  • John Gould. The Birds of Australia: in seven volumes - all volumes fully digitised.
  • T. H. Maguire. Portraits of the Honorary Members of the Ipswich Museum (George Ransome, Ipswich, 1846–1852).
  • Sidney Lee. Dictionary of national biography, Volume 22 (London: Smith, Elder & Co., 1890) pp. 287–8.
  • Sauer, G. C, 1948 Bird art and artists; John Gould. American Antiques Journal 3:6-9.
  • Sauer, G. C, 1983 John Gould in America. In Contributions to the History of North American Natural History. London, Society for the Bibliography of Natural History Special Publication No. 2:51-58.
  • Adrian Desmond and James Moore. Charles Darwin (Penguin Group, 1991)
  • Sauer, G. C, 1982 John Gould the bird man: a chronology and bibliography. Melbourne, Landsdowne Editions.
  • Tree, Isabella. The Ruling Passion of John Gould (Grove Weidefeld, 1991)
  • Isabella Tree. The Bird Man - The Extraordinary Story of John Gould (Ebury Press, 2003)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]