গাণিতিক দক্ষতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

গাণিতিক দক্ষতা বা গাণিতিক জ্ঞান বা গাণিতিক যুক্তি হলো গণিতের সাধারণ ধারণাকে বিশ্লেষনের কাজে লাগানোর ক্ষমতা.[১]। গাণিতিক জ্ঞান সম্পন্ন কোন ব্যক্তির পক্ষে খুব সহজেই জীবনের গাণিতিক প্রয়োজনগুলো মেটানো সম্ভব হয়.[২]। সংখ্যার ধারণা, যোগ-বিয়োগ প্রভৃতি কার্যক্রমের ধারণা, গণনা, মাপজোক করা, জ্যামিতি , সম্ভাবনা, পরিসংখ্যান ইত্যাদি গাণিতিক জ্ঞানের উদাহরণ। আমেরিকাতে গাণিতিক জ্ঞানকে গাণিতিক স্বাক্ষরতা বা কোয়ান্টিটেটিভ লিটারেসি বলা হয়ে থাকে।

সংখ্যার রূপায়ন[সম্পাদনা]

মানুষ তার পর্যবেক্ষণ (গণিত নয়) থেকে মনে মনে দুটি প্রধান পদ্ধতিতে সংখ্যাকে প্রকাশ করে[৩]। এই রূপায়নগুলো মানুষের সহজাত - ব্যক্তিগত শিক্ষা বা সাংস্কৃতিক পটভূমির এখানে কোন ভূমিকা নেই। এগুলো হলোঃ

  1. সংখ্যার বিস্তারের কাছাকাছি ধারণা এবং
  2. পৃথক সংখ্যার সম্যক উপস্থাপন

উভয় পদ্ধতিরই প্রকাশের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন কোন পদ্ধতিতেই ভগ্নাংশ বা ঋণাত্মক সংখ্যার অবকাশ নেই। বিদ্যালয়ে যে গণিত শেখানো হয় তার সাথে সহজাত গাণিতিক দক্ষতার সম্পর্ক রয়েছে[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Brooks, M; Pui (2010)। "Are individual differences in numeracy unique from general mental ability? A closer look at a common measure of numeracy."। Individual Differences Research। 4 8: 257–265।  |coauthors= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)
  2. Statistics Canada। "Building on our Competencies: Canadian Results of the International Adult Literacy and Skills Survey"। Statistics Canada। পৃ: 209। 
  3. ডিওআই:10.1016/j.tics.2004.05.002 http://www.wjh.harvard.edu/~lds/pdfs/feigenson2004.pdf
  4. ডিওআই:10.1038/nature07246