কে১২

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কে১২
কে১২ Jammu and Kashmir-এ অবস্থিত
কে১২
ভারতপাকিস্তানের মধ্যে বিতর্কিত অঞ্চল[১]
উচ্চতা ৭,৪২৮ মিটার (২৪,৩৭০ ফুট)
উচ্চতায় ৬১তম
সুপ্রত্যহ্মতা ১,৯৭৮ মিটার (৬,৪৯০ ফুট)
তালিকাসমূহ চরম
অবস্থান
পরিসীমা সালতোরো পর্বতশ্রেণী, কারাকোরাম
স্থানাঙ্ক ৩৫°১৯′১৬.৮″ উত্তর ৭৬°৫৯′০৭.৩″ পূর্ব / ৩৫.৩২১৩৩৩° উত্তর ৭৬.৯৮৫৩৬১° পূর্ব / 35.321333; 76.985361স্থানাঙ্ক: ৩৫°১৯′১৬.৮″ উত্তর ৭৬°৫৯′০৭.৩″ পূর্ব / ৩৫.৩২১৩৩৩° উত্তর ৭৬.৯৮৫৩৬১° পূর্ব / 35.321333; 76.985361
আরোহণ
প্রথম আরোহণ ১৯৭৪, শিনিচি তাকাগি, সুতোমু ইটো

কে১২ সালতোরো পর্বতশ্রেণীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এবং পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গগুলির মধ্যে একষট্টিতম ।

ভূগোল[সম্পাদনা]

কে১২ পর্বত সিয়াচেন হিমবাহের দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত। কে১২ হিমবাহটি কে১২ পর্বতের উত্তরপূর্ব ঢালে অবস্থিত এবং এই হিমবাহ সিয়াচেন হিমবাহে মিলিত হয়। এই পর্বতের পশ্চিম ঢালের বরফ বাইলাফন্ড হিমবাহে এসে জমা হয় ও পরে ডানসাম নদীকে পুষ্ট করে।

আরোহণ[সম্পাদনা]

১৯৫৭ খ্রিষ্টাব্দে এরিক শিপটনের নেতৃত্বে এক ব্রিটিশ অভিযাত্রী দল পাকিস্তানের অনুমতিপত্র নিয়ে বাইলাফন্ড গিরিবর্ত্ম পার হয়ে এই শৃঙ্গের নিকটে আসেন কিন্তু তাঁরা আরোহণের প্রচেষ্টা করেননি।[২] ১৯৬০ ও ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে এই পর্বতে দুই বার শৃঙ্গ জয়ের ব্যর্থ অভিযান হয়। ১৯৭৪ খ্রিষ্টাব্দে এক জাপানী পর্বতারোহী দলের হয়ে শিনিচি তাকাগি ও সুতোমু ইটো প্রথম শীর্ষে আরোহণ করেন কিন্তু নিচে নামার সময় তাঁরা পড়ে গিয়ে মারা যান। তাঁদের মৃতদেহ উদ্ধার করাও সম্ভবপর হয়নি। ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দে অপর এক জাপানী পর্বতারোহী দল দ্বিতীয়বার এই পর্বতের শীর্ষে আরোহণ করেন। [৩]

বিতর্কিত অঞ্চল[সম্পাদনা]

১৯৬৭ খ্রিষ্টাব্দ থেকে দ্য ইউনাইটেড স্টেটস ডিফেন্স ম্যাপিং এজেন্সী কোন রকম তথ্যসূত্র ছাড়াই তাদের কৌশলগত অগ্রণী মানচিত্রে সমগ্র সিয়াচেন হিমবাহসালতোরো পর্বতশ্রেণী পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত বলে দেখাতে থাকে।[৪]সিয়াচেন হিমবাহ অঞ্চলের সীমান্ত সম্বন্ধে সিমলা চুক্তিতে অস্পষ্ট ভাবে উল্লেখ করা হয় যে সীমান্ত এনজে ৯৮৪২ থেকে উত্তরদিকে হিমবাহের দিকে এটি বিস্তৃত থাকবে। এনজে ৯৮৪২ এর স্থানাঙ্কের পার্শ্ববর্তী এলাকায় অসম্পূর্ণ ভাবে সংজ্ঞায়িত মানচিত্রের ওপর মালিকানার দাবীর কারণে ভারতপাকিস্তান এই দুই দেশের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। [৫] এ বিতর্কের ফলস্বরূপ ১৯৮৪ খ্রিষ্টাব্দে সিয়াচেন দ্বন্দ্ব শুরু হয় এবং ভারতীয় সেনাবাহিনী অপারেশন মেঘদূত সামরিক অভিযানের মাধ্যমে এই পর্বতটি ভারতের অধিকারে আনে। [৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. India is in de facto control of this region of Kashmir; the Indian claim is disputed by Pakistan. See e.g. The Future of Kashmir on the BBC website.
  2. Himalayan Journal Vol. 21
  3. Himalayan Index
  4. "2003 article about Siachen in Outside magazine"। Outsideonline.com। সংগৃহীত 2011-04-15 
  5. Modern world history- Chapter-The Indian subcontinent achieves independence/The Coldest War.
  6. "War at the Top of the World"Time। November 7, 2005। 
  • Jerzy Wala, Orographical Sketch Map of the Karakoram, Swiss Foundation for Alpine Research, 1990.
  • Jill Neate, High Asia: an illustrated history of the 7,000 metre peaks, The Mountaineers, 1989.