কূটনৈতিক পদমর্যাদা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

কূটনৈতিক পদমর্যাদা (ইংরেজি: Diplomatic rank) হচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও কূটনীতিবিদ্যার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সাধারণ অর্থে, একটি দেশের কূটনৈতিক মিশনে অবস্থানকারী সরকারী ও বেসরকারী ব্যক্তিবর্গের পদমর্যাদাকেই কূটনৈতিক পদমর্যাদা নামে অভিহিত করা হয়ে থাকে। ১৯৬১ সালে অষ্ট্রিয়ার ভিয়েনাতে কূটনৈতিক সম্পর্ক সংক্রান্ত একটি সম্মেলনে কূটনৈতিক মিশনের পদমর্যাদা সর্ম্পকে বলা হয়েছে।

সাধারণ ইউরোপীয় কূটনৈতিক পদমর্যাদা[সম্পাদনা]

১৮১৫ সালের কংগ্রেস অব ভিয়েনার মাধ্যমে কূটনৈতিক পদমর্যাদার গুরুত্ব দেয়া হয়।

  • রাষ্ট্রদূত
  • বিশেষ ক্ষমতা সম্পন্ন মন্ত্রী ও বিশেষ কূটনৈতিক প্রতিনিধি
  • চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স

আধুনিক কূটনৈতিক পদমর্যাদা[সম্পাদনা]

১৯৬১ সালের ভিয়েনা সম্মেলনে আধুনিক কূটনৈতিক পদমর্যাদা নির্ধারন করা হয়।

  • রাষ্ট্রদূত
  • উপরাষ্ট্রদূত, কূটনৈতিক মন্ত্রী
  • চার্জ দ্য অ্যাফের্য়াস

এছাড়াও নিম্নোক্ত শব্দগুলো ব্যবহার করা হয় -

  • ফার্ষ্ট সেক্রেটারী
  • সেকেন্ড সেক্রেটারী
  • থার্ড সেক্রেটারী
  • অ্যাটাশে

ব্রিটিশ কমনওয়েলথভুক্ত দেশসমূহের রাষ্ট্রদূতদের হাই কমিশনার বলা হয়ে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

১. পরিবর্তনশীল বিশ্বে আর্ন্তজাতিক আইন, ড: মিজানুর রহমান, পলল প্রকাশনী, ঢাকা। ২০১০