কাহার-৩১৩

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কাহার-৩১৩
ভূমিকা স্টেল্থ
উৎস দেশ ইরান
প্রবর্তন ১ ফেব্রুয়ারী ২০১৩
অবস্থা সংস্কারাধিন

কাহার-৩১৩ (ফার্সি: قاهر-۳۱۳; ঘাহার-৩১৩) যার অর্থ বিজয়ী[১] ইরানের তৈরি ধূসর বর্ণের যুদ্ধবিমান। মাহমুদ আহমাদিনেজাদ দাবি করেছেন, এটি বিশ্বের অন্যতম আধুনিক যুদ্ধবিমান।[২]

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

যুদ্ধবিমান রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম বলে দাবি করেছে ইরানের কর্মকর্তারা। তাছাড়া বিমানটি যুদ্ধের সময় শত্রুপক্ষের বিমান চিহ্নিত করতে এবং ভূমিতে লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালাতে সক্ষম। যুদ্ধবিমানটি অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ যুদ্ধ সরঞ্জামবহন করতে সক্ষম।[১][৩]

আকা[সম্পাদনা]

যুদ্ধবিমানটি দেখতে ইস্পাতের মতো ধূসর বর্ণের। বিমানটি ‘উন্নত উপাদান’ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এবং এতে খুবই নিম্নমাত্রার ‘রাডার সিগনেচার’ রয়েছ।[৪]

সন্দেহ[সম্পাদনা]

ইরানের বিমানবাহিনীর কয়েক ডজন রুশ ও মার্কিন মডেলের যুদ্ধবিমান আছে। এই যুদ্ধবিমানগুলো ১৯৭৯ সালের বিপ্লবের আগে সংগ্রহ করেছিল ইরান। এরপর দেশটির ওপর একের পর এক আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। এ কারণে ইরানের সামরিক খাতের তেমন অগ্রগতি হয়নি। তাই তাদের তৈরি এই যুদ্ধবিমানটি মান নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।[২][৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম ইরানের যুদ্ধবিমান,বিজয় নিউজ ২৪ ডটকম। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০২-০২-২০১৩ খ্রিস্টাব্দ।
  2. ২.০ ২.১ ইরানের নতুন যুদ্ধবিমান,অনলাইন ডেস্ক, দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০২-০২-২০১৩ খ্রিস্টাব্দ।
  3. ইরানের নতুন যুদ্ধবিমান কাহের-313,ইনডিপেনডেনট। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০৩-০২-২০১৩ খ্রিস্টাব্দ।
  4. ৪.০ ৪.১ রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম যুদ্ধবিমান বানাল ইরান,বিবিসি, দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০৪-০২-২০১৩ খ্রিস্টাব্দ।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]