ওয়াজাদা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ওয়াজাদা
আরবি ভাষায়(وجدة)
WADJDA.jpg
প্রেক্ষাগৃহে মুক্তিপ্রাপ্ত পোস্টার
পরিচালক হাইফা আল মনসুর[১][২]
প্রযোজক গ্যাহার্ড ম্যাক্সনার[১]
রোমান পল[১]
বেটিনা রিকলেফ্স
রচয়িতা হাইফা আল মনসুর[১]
চিত্রনাট্যকার হাইফা আল মনসুর
অভিনেতা ওয়াদ মোহাম্মেদ
রিম আবদুল্লাহ
আবদুল রহমান আল গোহানি
সুলতান আল আসাফ
সুরকার ম্যাক্স রিখটার
চিত্রগ্রাহক লার্টজ রাইটিমেয়ার
সম্পাদক আন্দ্রিয়াস ওডরাস্কি[১]
স্টুডিও রেজার ফিল্ম[২]
রোটানা[২]
স্টুডিওস হাইলোক কমিউনিকেসনস গ্রুপ
উত্তর জার্মান ব্রডকাস্টিং
বণ্টনকারী প্রিটি পিকচারস (ফ্রান্স)
সনি পিকচার্স ক্লাসিক (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
সোডা পিকচার্স (যুক্তরাজ্য)
মুক্তি ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১২ (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
১৫ আগস্ট, ২০১৩ (জার্মানি)
দৈর্ঘ্য ৯৮ মিনিট[২][৩]
দেশ সৌদি আরব
জার্মানি
ভাষা আরবি

ওয়াজাদা, (ইংরেজি ভাষায়: Wadjda ; আরবি ভাষায়: وجدة) হাইফা আল মনসুর পরিচালিত একটি চলচ্চিত্র। এটি সৌদি আরবের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র যা কোন নারী চলচ্চিত্র পরিচালক দ্বারা নির্মিত।[২][৩] ছবিটি সৌদি আরবের একজন অল্প বয়স্ক মেয়ের গল্প নিয়ে তৈরি করা হয়েছে, যে তার দেশের ঐতিহ্যকে চ্যালেঞ্জ করে। এই ছবিটি পরিচালনা করে সৌদি আরবের প্রথম নারী চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন হাইফা আল মনসুর[৩] ছবির প্রধান চরিত্র গুলোতে অভিনয় করেছেন ওয়াদ মোহাম্মেদ, রিম আবদুল্লাহ এবং আবদুল রহমান আল গোহানি সহ প্রমুখ।[১][২] ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রে ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১২ তারিখে মুক্তি পায়।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

ওয়াজাদা (ওয়াদ মোহাম্মেদ) দশ বছর বয়সী বালিকা যে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে বসবাস করে। একটি খেলনার দোকানের পাশ দিয়ে প্রতিদিন যাওয়ার সময় জানালা দিয়ে সে একটি সবুজ বাইসাইকেলের দিকে তাকিয়ে থাকে। পাশের বাড়ির বালকের সাথে প্রতিযোগিতা দেওয়ার জন্য সে একদিন তার মাকে সবুজ বাইসাইকেলটি কিনে দিতে বলে কিন্তু সৌদি আরবের মত রক্ষনশীল সমাজে মেয়েদের সাইকেল চালানো নিষেধ। তখন সে নিজেই বাইসাইকেল কেনার জন্য গোপনে টাকা জমানো শুরু করে। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যে তার পরিকল্পনার কথা ফাঁস হয়ে যায়।

ওয়াজাদার (ওয়াদ মোহাম্মেদ) স্কুলে কোরআন পড়ার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় যেখানে বড় অংকের টাকা পুরস্কার হিসেবে দেওযা হয়। ওয়াজাদা (ওয়াদ মোহাম্মেদ) তখন তার সপ্নের বাইসাইকেল কেনার জন্য কিভাবে অন্য প্রতযোগীদের হারানো যায় সেই পরিকল্পনা করতে থাকে।[১][৪]

নির্মাণ ইতিহাস[সম্পাদনা]

ছবিটি নির্মাণের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে পরিচালক হাইফা আল মনসুর বলেন, 'ছবিটির মাধ্যমে আমি সংস্কৃতি ও আধুনিকতার মধ্যে যে দ্বন্দ্ব তা তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। ছবিটি তৈরিতে প্রথমে কেউই আমাকে অর্থ দিয়ে সাহায্য করতে চায়নি। অর্থাৎ প্রযোজক নির্বাচন করতে গিয়ে সমস্যায় পড়ি।'

তিনি আরো বলেন, 'ছবির শুটিং করতে গিয়েও আমাকে নানা ঝামেলা পোহাতে হয়েছে। কারণ দলে অনেক পুরুষ অভিনেতা ও সহকারী রয়েছে। তাদের সঙ্গে প্রকাশ্যে কাজ করা যায় না। একটি ভ্যানের ভেতর থেকে ওয়াকিটকির মাধ্যমে অভিনেতাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়। অনেক জায়গায় শুটিং করতে হয়েছে, এলাকার লোকজন বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছে।'

সৌদি আরবের জনসমক্ষে চলচ্চিত্র প্রদর্শন অবৈধ বলে সৌদি আরবের দর্শকরা কেবল ডিভিডি বা টেলিভিশনেই “ওয়াজদা” দেখার সুযোগ পাবে।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

  • ওয়াদ মোহাম্মেদ - ওয়াজাদা
  • রিম আবদুল্লাহ - মা
  • আবদুল রহমান আল গোহানি - আবদুল্লাহ
  • সুলতান আল আসাফ- ওয়াজাদার বাবা
  • দানা আবদুলিল্লা - সালমা
  • রিহাব আহসেদ - নূরা
  • রাফা আল সানিয়া - ফাতিমা
  • মোহাম্মদ আলবারী - ঠিকাদার
  • সারা আল জারে - লাইলা
  • নূরে ফয়সাল - আবির
  • সামি হজিম - আব্দুল্লার কাকা
  • মোহাম্মদ জহির - ইকবাল ড্রাইভার

কলাকুশলীবৃন্দ[সম্পাদনা]

  • প্রযোজক - গ্যাহার্ড ম্যাক্সনার, রোমান পল, বেটিনা রিকলেফ্স (নির্বাহী প্রযোজক), ক্রিসটিয়ান গ্রেডারাথ (নির্বাহী প্রযোজক), লুইস নেমসকফ (নির্বাহী প্রযোজক), রেনা রনসন (নির্বাহী প্রযোজক), হলা সারান (নির্বাহী প্রযোজক), ভেরোনা মিয়ার (সহকারী প্রযোজক), আমের আলকাতানি (সহ - প্রযোজক)
  • পরিচালক - হাইফা আল মনসুর
  • চিত্রনাট্য - হাইফা আল মনসুর
  • চিত্র সম্পাদক - আন্দ্রিয়াস ওডরাস্কি
  • চিত্র গ্রহন - লার্টজ রাইটিমেয়ার
  • মেকআপ - অলিভার জিমস স্কর্ট
  • সঙ্গীত - ম্যাক্স রিখটার
  • কস্টিউম ডিজাইন - পিটার পল
  • ইউনিট ম্যানেজার - নিকলাস হলওয়াচ

রিলিজ[সম্পাদনা]

দেশ তারিখ উৎসব নোট
ইতালি ৩১ আগস্ট, ২০১২[৫] ভেনিস ফিল্ম ফেসটিভাল
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১২[৫] টেলুরাইড ফিল্ম ফেস্টিভাল
পোল্যান্ড ২৮ নভেম্বর, ২০১২[৫] বিশ্ব সিনেমা ফেস্টিভাল
আইস্ল্যাণ্ড ২৯ নভেম্বর, ২০১২[৫] সাড়া দেশে
ইতালি ডিসেম্বর, ২০১২[৫] সাড়া দেশে
নেদারল্যান্ড ২৬ জানুয়ারি, ২০১৩[৫] ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল রোটারডাম
সুইডেন ৩০ জানুয়ারি, ২০১৩[৫] গুটেবর্গ ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল
বেলজিয়াম ফেব্রুয়ারি, ২০১৩[৫] সাড়া দেশে
ফ্রান্স ফেব্রুয়ারি, ২০১৩[৫] সাড়া দেশে
সার্বিয়া ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৩[৫] বেলগ্রেড ফিল্ম ফেস্টিভাল
সুইডেন মার্চ, ২০১৩[৫] সাড়া দেশে
নেদারল্যান্ড ১৬ মে, ২০১৩[৫] স্ড়া দেশে
যুক্তরাজ্য আগস্ট, ২০১৩[৫] সাড়া দেশে
জার্মানি ১৫ আগস্ট, ২০১৩[৫] সাড়া দেশে

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ওয়াজাদা অনেক পুরষ্কার অর্জন করে । এখন পর্যন্ত সব মিলে ওয়াজাদা তার ঝোলায় পুড়েছে ১০টি পুরস্কার ও দুটি নমিনেশন।

সাল পুরষ্কার চলচ্চিত্র উৎসব নমিণী ফলাফল
২০১২ মাহের আরব পুরস্কার[১] দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল[১] ওয়াদ মোহাম্মেদ (শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী)
গ্যাহার্ড ম্যাক্সনার (শ্রেষ্ঠ ছায়াছবি)
রোমান পল (শ্রেষ্ঠ ছায়াছবি)
জয়ী[৬]
২০১২ ডন কাইজটি পুরস্কার
ন্যাটপ্যাক পুরস্কার
গ্র্যান্ড পুরস্কার
ট্যালিন ব্ল্যাক নাইটস ফিল্ম ফেস্টিভাল[৬] হাইফা আল মনসুর (বিশেষ উল্লেখ)
হাইফা আল মনসুর
হাইফা আল মনসুর
জয়ী
জয়ী
মননীত
২০১২ সিনেমা ভেনেরি পুরস্কার
সিআইসিএই পুরস্কার
আন্ত চলচ্চিত্র পুরস্কার
ভেনিস ফিল্ম ফেস্টিভাল[৬] হাইফা আল মনসুর (শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র)
হাইফা আল মনসুর
হাইফা আল মনসুর
জয়ী
জয়ী
জয়ী
২০১২ সদারল্যান্ড ট্রফি ব্রিটিশ ফিল্ম ইনস্টিটিউট অ্যাওয়ার্ডস[৬] হাইফা আল মনসুর মননীত
২০১৩ ডিরেক্টরস টু ওয়াচ পাম স্প্রিংস ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল[৬] হাইফা আল মনসুর জয়ী
২০১৩ গ্র্রান্ড প্রিক্স ফ্রিবর্গ ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল হাইফা আল মনসুর মননীত
২০১৩ ডিওরাফতি পুরস্কার রোটারডাম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল হাইফা আল মনসুর জয়ী

স্থিরচিএ[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]