উমিয়া পুরাতন কারাগার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
উমিয়ার পুরাতন কারাগার
Umeå gamla fängelse
Cellfängelset, Umeå.jpg
উমিয়ার পুরাতন কারাগার, স্টোরগাটান থেকে দেখা।
প্রাক্তন নাম Cellfängelset
বিকল্প নাম Länscellfängelset
সাধারণ তথ্য
অবস্থা সম্পূর্ণ
ধরন কারাগার
ঠিকানা স্টোরগাটান ৬২
শহর উমিয়া
দেশ সুইডেন
স্থানাঙ্ক ৬৩°৪৯′২০.৪″ উত্তর ২০°১৬′৩১.৪″ পূর্ব / ৬৩.৮২২৩৩৩° উত্তর ২০.২৭৫৩৮৯° পূর্ব / 63.822333; 20.275389স্থানাঙ্ক: ৬৩°৪৯′২০.৪″ উত্তর ২০°১৬′৩১.৪″ পূর্ব / ৬৩.৮২২৩৩৩° উত্তর ২০.২৭৫৩৮৯° পূর্ব / 63.822333; 20.275389
নির্মাণ শুরু হয়েছে ১৮৫৯
সম্পূর্ণ ১৮৬২
স্বত্বাধিকারী সুইডেনের জাতীয় সম্পদ বোর্ড
নকশা এবং নির্মান
স্থপতি উইলহেম থিওডোর অ্যাঙ্কাসভার্ড

উমিয়া পুরাতন কারাগার (সুয়েডীয়: 'Umeå gamla fängelse') বা länscellfängelset ১৮৬১ সালে নির্মিত একটি কারাগার। কারাগারটি সেই সকল ভবনসমূহের একটি যেগুলো ১৮৮৮ সালের অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যায়নি। তাই, এটি উমিয়ার প্রাচীনতম ভবনসমূহের একটি এবং তাই এটি ১৯৯২ সাল থেকে চিহ্নিত ভববসমূহের মধ্যে একটি। কারাগারটি এর বাসিন্দাদের ১৯৮১ সাল পর্যন্ত রাখত কারণ তখন ১৯৮০ বা ১৯৯০ সালের থিয়েটারের নাটকগুলো সেখানে অনুষ্ঠিত হত। এবং এরপরে ২০০৭-২০০৮ সালে কারাগারটিকে হোটেলে পরিণত করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

উমিয়ার এ পুরাতন কারাগারটি উইলহেম থিওডোর অ্যাঙ্কার্সভার্ড কর্তৃক নকশাকৃত ২০টি প্রাদেশিক কারাগারের মধ্যে একটি। ১৮৫৫-১৮৭৭ সাল পর্যন্ত থিওডোর ছিলেন কারাগার বোর্ডের স্থপতি।[১]

এই কারাগারসমূহ আমেরিকান ফিলাডেলফিয়া ব্যবস্থার একটি মডেল হিসেবে তৈরি হয়েছে। এটি সেই সকল সাধারণ কক্ষর স্থলে আসে যেখানে কয়েদীরা তাদের ভাগ্যসম্পর্কে ভাবতে পারবেন। কারাগারের দুই তলা ভবনে প্রায় ২৪টি কক্ষ ছিল। এগুলোর প্রতিটিই বাইরের দেয়ালের দিকে নির্মিত হয়েছিল যেন কক্ষে সূর্যের আলো আসতে পারে। কারাগারে অফিস এবং বাড়িঘরের জন্যও স্থান ছিল। ১৮৮৮ সালের অগ্নিকাণ্ড থেকে বেঁচে যাওয়া একটি ভবন এটি। দক্ষিণের কাঠনির্মিত লোহার বেড়াও এ আগুন থেকে বেঁচে যায় এবং এই নকশা অন্যান্য দর্শকদের কারাগারের ইয়ার্ডের নকশা সম্পর্কে একটি ধারণা দেয়।[১]

স্থানীয় দৈনিক ভ্যাস্টারবটেনস-কুরিরেন-এর তৎকালীন প্রধান সম্পাদক গুস্তভ রোঁসে (১৮৭৬-১৯৪২) এই কারাগারে ১৯১৬ সালে তিন মাস কাটান। তাঁকে শহরের করণিক (শহরের সর্বোচ্চ পদাসীন পুলিশ অফিসার) এর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা আরোপ করা হয়েছিল। তথাকথিত উমিয়া যুদ্ধ (উমিয়াব্রাকেন) এর চরমাবস্থা এটি যা গোটা দেশের আকর্ষণ এখানে নিয়ে আসে।[২][৩]

কারাগারটি বর্তমানে উমিয়ার প্রাচীনতম পাথরের ভবসমূহের একটি যা অক্ষত রয়েছে। এটি দেশসেরা সংরক্ষিত কারাগারও বটে। ১৯৮১ সালে উমিয়া কারাগারের নির্মাণ শেষ হবার আগ পর্যন্ত এটিই কারাগার হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছিল।[৪] সুইডেনের জাতীয় সম্পদ বোর্ড (এসএফভি) এই কারাগারের স্বত্বাধিকারী এবং ১৯৯২ সালে ভবনটি জাতীয় সৌধ হিসেবে স্বীকৃতি পায়।[৪]

থিয়েটার[সম্পাদনা]

১৯৮৭ সাল থেকে এবং ১৯৯০-এর দশকের বেশিরভাগ সময়েই ভবনটি এবং ব্যায়ামের মাঠটি নতুন থিয়েটার দল গ্রোত্তিয়েটার্ন এবং স্বাধীন থিয়েটার দল প্রোফিলটিয়েটার্ন কর্তৃক ব্যবহৃত হত। ১৮৮৮ সালের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডর শতবার্ষিকী উপলক্ষে ১৯৮৮ সালে একটি থিয়েটার প্রোডাকশন মারাত্মক আগুনের খেলা (Spelet om den stora branden) (ফ্রাঙ্ক কেলবার কর্তৃক) অনুষ্ঠিত হয় কারাগারের ব্যায়ামের মাঠে। গ্রোত্তিয়েটার্ন এবং প্রোফিলটিয়েটার্ন দুই দলই ঐ বছরের পরের কয়েক বছরের গ্রীষ্মে এখানে অনুষ্ঠান করেছিল।[৫]

হোটেল[সম্পাদনা]

২০০৭-২০০৮ সালে ভবনটিকে হোটেল করা হয়। হোটেলটিতে মোট ২৩টি একক কক্ষ, ২টি পারিবারিক কক্ষ এবং একটি দ্বৈত কক্ষ ছাড়াও একটি সম্মেলন কক্ষ রয়েছে যেখানে মিটিং ও উৎসব করা হয়ে থাকে। সম্মেলন কক্ষটি অনায়াসেই ৫০ জন ধারণ করতে পারে। এতে খাট, সাধারণ ঝরণা এবং টয়লেট ছাড়াও, এবং সামাজিকীকরণ এলাকা রয়েছে।[৬] ইয়ার্ডের ওপরকার সম্প্রসারিত স্থানে ক্যাফে গোটেবার্গ নামক একটি কাফে অবস্থিত।[৭]

গ্যালারী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ "Statens fastighetsverks sida: F.d. cellfängelset i Umeå, numera hotell"। সংগৃহীত 13 April 2014 
  2. Petersson, Birgit। "E J Gustav Rosén"Svenskt biografiskt lexikon। সংগৃহীত 13 April 2014 
  3. Ullenhag, Kersti। "Rosén, Gustav 1876 - 1942"। Ohlininstitutet। সংগৃহীত 13 April 2014 
  4. ৪.০ ৪.১ "F.d. cellfängelset i Umeå, numera hotell"। Statens fastighetsverk। সংগৃহীত 7 December 2013 
  5. Anders S. Svensson। "Spelplatsen – rastgården till gamla cellfängelset i Umeå"। সংগৃহীত 13 April 2014 
  6. "Hotell Gamla Fängelset"। visitumea.se। সংগৃহীত 7 December 2013 
  7. "Café Göteborg"। Hotell Gamla Fängelset i Umeå। সংগৃহীত 13 April 2014 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]