ইংরেজি সাহিত্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ইংরেজি সাহিত্য বলতে বোঝায় ইংরেজি ভাষায় রচিত সাহিত্য। কেবলমাত্র ইংল্যান্ডের লেখকদের সাহিত্যকেই এই বর্গের অন্তর্ভুক্ত করা হয়, তা নয়। উদাহরণস্বরূপ, রবার্ট বার্নস ছিলেন একজন স্কটিশ, জেমস জয়েস ছিলেন আইরিশ, জোসেফ কনরাড পোল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, ডিলান টমাস ছিলেন ওয়েলশ, এডগার অ্যালান পো ছিলেন আমেরিকান, ভি. এস. নাইপল ত্রিনিদাদে জন্মগ্রহণ করেন এবং ভ্লাদিমির নবোকভ ছিলেন রাশিয়ান। কিন্তু এঁরা প্রত্যেকেই ইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাসে গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্যিকের মর্যাদা পেয়ে থাকেন। অন্যভাবে বললে, ইংরেজি সাহিত্য বিশ্বব্যাপী ইংরেজি ভাষার নানা প্রকারভেদ ও উপভাষার সংখ্যার মতোই বৈচিত্র্যপূর্ণ। শিক্ষাজগতে বিভিন্ন দ্বিতীয় বা তৃতীয় ভাষাস্তরে বিভাগ বা শিক্ষাকর্মসূচিগুলি ইংরেজি শিক্ষা শব্দবন্ধটি প্রয়োগ করা হয়ে থাকে। ইংরেজি সাহিত্যে বহুসংখ্যক সাহিত্যিক থাকলেও, সমগ্র ইংরেজি-ভাষী বিশ্বে উইলিয়াম শেকসপিয়রকে সর্বশ্রেষ্ঠ সাহিত্যিকের মর্যাদা দেওয়া হয়।

এই নিবন্ধটি মূলত ব্রিটেনের ইংরেজি সাহিত্য সম্পর্কিত। অন্যান্য অঞ্চলের ইংরেজি সাহিত্য সম্পর্কে জানতে নিচের "আরও দেখুন" অংশটিতে যান।

প্রাচীন ইংরেজি সাহিত্য[সম্পাদনা]

৪৫০ থেকে ১০৬৬ সাল পর্যন্ত সময়কে বলা হয় প্রাচীন ইংরেজি সাহিত্যের সময়। এই সময়ে জারমানি Germany থেকে জুটস Jutes Angles ‍এঙ্গেল্স এবং Saxon সেক্সজন ইংলেন্ডে আসে। তারা ইংরেজদেরEngland পরাজিত করে এবং তারা রাজত্ব শুরু করে। আলফারেড দ্যা গ্রেড Alfred the Great শিক্ষার উন্নয়ন ঘটায় এই সময়ে। এর থেকে বেশি এই লেখক সম্পর্কে জানাযায়নি।

এংলো নর্মান[সম্পাদনা]

এংলো নর্মান সময়ের ১০৬৬ সালে শুরু করে এবং ১৩৪০ সালে শেষ হয়. সুতরাং, (১০৬৬-১৩৪০) এংলো নরমান কাল বলা হয়. যে সময়ের সাহিত্য এংলো নর্মান, Egnland নতুন শাসক শ্রেণী দ্বারা কথিত ফরাসি ভাষার মধ্যে বেশিরভাগই লিখিত ছিল.

রেঁনেসা সাহিত্য[সম্পাদনা]

প্রাক আধুনিক যুগ[সম্পাদনা]

এলিযাবেথীয় যুগ[সম্পাদনা]

জ্যাকোবীয় যুগ[সম্পাদনা]

ক্যারোলিন ও ক্রমওয়েলীয় সাহিত্য[সম্পাদনা]

রেস্টোরেশন সাহিত্য[সম্পাদনা]

অগাস্টীয় সাহিত্য[সম্পাদনা]

অষ্টাদশ শতাব্দী[সম্পাদনা]

রোমান্টিসিজম[সম্পাদনা]

ভিক্টোরীয় সাহিত্য[সম্পাদনা]

আধুনিকতা[সম্পাদনা]

উত্তর-আধুনিকতা[সম্পাদনা]

উত্তর-আধুনিকতা যুগের শুরু বলা যায় ২য় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে।

ইংরেজি সাহিত্য সম্পর্কে[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]