ইঁদুর মারা বিষ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ওয়ারফারিন[সম্পাদনা]

পুরোন ইঁদুর মারা বিষ Warfarin

ওয়ারফারিন (en:Warfarin) জাতীয় প্রতি-তঞ্চক ইঁদুর মারা বিষ হিসাবে এক সময়ে বহু ব্যবহৃত।

কার্যপ্রণালী[সম্পাদনা]

ওয়ারফারিন (en:Warfarin) জাতীয় প্রতি-তঞ্চক যা যকৃতে "ভিটামিন K"র কাজে বাধা দেয়, ফলতঃ ইঁদুর রক্ত তঞ্চনের অভাবে দেহাভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণে মারা যায়। সাধারণত খাবারে মিশিয়ে ব্যবহার হয় যাতে ইঁদুর বারবার এসে খায় ও বিষের মারাত্মক মাত্রা অতিক্রান্ত হয়।

উপসর্গ: বিষের জ্বালায় ভীষণ জলপিপাসা পায়।

অসুবিধা[সম্পাদনা]

প্রথমে ইঁদুর মারার জন্যই বিক্রী হলেও এখন ওয়ারফারিন বিষ হিসাবে ব্যবহারে অসুবিধা:

দ্বিতীয় সারির ইঁদুর মারা বিষ Brodifacoum
  1. এখন আরো বেশী কার্যকর ইঁদুর মারা বিষ বাজারে এসে গেছে যেমন দ্বিতীয় সারীর সেঁকো বিষ Brodifacoum (কার্যপদ্ধতি ওয়ারফারিনের মতই)। এটি এখন বিশ্বের সর্বাধিক ব্যবহৃত ইঁদুর মারা বিষ।
  2. প্রতিরোধ (রেজিস্ট্যেন্স) : সাধারণ ইঁদুরদের মধ্যেই কিছ সংখ্যকের মধ্যে বিষক্রিয়া প্রতিরোধী জিন ছিল। ডমিন্যান্ট হলেও জিনটির সক্রিয় অ্যালিলটি আগে দুর্লভ ছিল। কিন্তু বিষ (Warfarin এবং Brodifacoum)ব্যবহারের পর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।
  3. ওয়ারফারিন এখন মানুষের ওষুধ- প্রতি-তঞ্চক বড়ি (oral anticoagulant) হিসাবে ব্যবহৃত।

বিষক্রিয়ার চিকিৎসা[সম্পাদনা]

ভুল করে মানুষ বা পোষ্য প্রাণী ওয়ারফারিন বিষ খেলে চিকিৎসা:

  1. রক্ত প্রদান (blood transfusion)
  2. পরিমিতভাবে ভিটামিন K খাওয়ানো

সেঁকো বিষ[সম্পাদনা]

আর্সেনিকযুক্ত বিষকে বলে সেঁকো বিষ