অ্যালফ্রেড হিচককের চলচ্চিত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বিস্তারিত তথ্যের জন্য দেখুন: অ্যালফ্রেড হিচকক

নির্বাক চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বর্ষ নাম প্রোডাকশন কোম্পানি অন্যান্য মন্তব্য
১৯২২ নাম্বার ১৩ ওয়ারডৌর অ্যান্ড এফ অসম্পূর্ণ, ধরনা করা হয় হারিয়ে গেছে।
১৯২৩ অলয়েস টেল ইয়োর ওয়াইফ সেইমৌর হিক্‌স প্রোডাকশন হিচকক কৃতিত্ব পাননি। দুই রিলের মাত্র একটি রক্ষিত আছে।
১৯২৫ দ্য প্লেজার গার্ডেন গেইন্‌সবরো পিকচার্‌স
Münchner Lichtspielkunst AG (Emelka)
১৯২৬ দ্য মাউন্টেইন ঈগল গেইন্‌সবরো পিকচার্‌স/
Münchner Lichtspielkunst AG (Emelka)
হারিয়ে গেছে
১৯২৭ দ্য লজার গেইন্‌সবরো পিকচার্‌স/
Carlyle Blackwell Productions
১৯২৭ ডাউনহিল গেইন্‌সবরো পিকচার্‌স
১৯২৭ দ্য রিং ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯২৮ ইজি ভার্চু গেইন্‌সবরো পিকচার্‌স
১৯২৮ দ্য ফার্মার্‌স ওয়াইফ ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯২৮ শ্যাম্পেইন ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯২৯ দ্য ম্যান্‌ক্সম্যান ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯২৯ ব্ল্যাক মেইল ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স এর নির্বাক ভার্শনটি সবাক ভার্শনের পরে কেবল থিয়েটারের জন্য প্রকাশিত হয়েছিল।

ব্রিটিশ চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বর্ষ নাম প্রোডাকশন কোম্পানি মন্তব্য
১৯২৯ ব্ল্যাকমেইল ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স প্রথম ব্রিটিশ সবাক চলচ্চিত্র
১৯৩০ জুনো অ্যান্ড দ্য পেকক ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩০ মার্ডার! ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩০ এল্‌সট্রি কলিং ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩১ দ্য স্কিন গেইম ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩১ ম্যারি Süd-Film AG
১৯৩২ নাম্বার সেভেনটিন ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩২ রিচ অ্যান্ড স্ট্রেইঞ্জ ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৩৩ ওয়েলজেস ফ্রম ভিয়েনা গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৪ দ্য ম্যান হু নু টু মাচ গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন প্রথম সংস্করণ
১৯৩৫ দ্য ৩৯ স্টেপ্‌স গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৬ সিক্রেট এজেন্ট গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৬ স্যাবোটেজ গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৭ ইয়াং অ্যান্ড ইনোসেন্ট গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৮ দ্য লেডি ভ্যনিশেস গাউমন্ট ব্রিটিশ পিকচার কর্পোরেশন
১৯৩৯ জ্যামাইকা ইন মেফ্লাওয়ার পিকচার্‌স কর্পোরেশন লিমিটেড

মার্কিন/ব্রিটিশ চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বর্ষ নাম প্রযোজক কোম্পানি মন্তব্য
১৯৪০ রেবেকা সেল্‌জনিক ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স সেরা চিত্রায়নের জন্য একাডেমি পুরস্কার পায়। দ্যফনে দ্য মঁরিয়ের একটি বই অবলম্বনে।
১৯৪০ ফরেইন কারেসপন্ডেন্ট ওয়াল্টার ওয়েগনার প্রোডাকশন্‌স ইনকরপোরেটেড/
সেল্‌জনিক ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স
১৯৪১ মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ আরকেও রেডিও পিকচার্‌স
১৯৪১ সাসপিশন আরকেও রেডিও পিকচার্‌স
১৯৪২ স্যাবোটিয়ার ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স/
ফ্রাঙ্ক লয়েড প্রোডাকশন্‌স
১৯৪৩ শ্যাডো অফ এ ডাউট ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স/
স্কারবল প্রোডাকশন্‌স
১৯৪৪ লাইফবোট টুয়েন্টিয়েথ সেঞ্চুরি ফক্স
১৯৪৪ অ্যাডভেঞ্চার ম্যালগেইচ তথ্য মন্ত্রণালয় ফরাসি ভাষার স্বল্প দৈর্ঘ্য।
১৯৪৪ বন ভয়েজ তথ্য মন্ত্রণালয় ফরাসি ভাষার স্বল্প দৈর্ঘ্য।
১৯৪৫ স্পেলবাউন্ড সেল্‌জনিক ইন্টারন্যাশনাল পিকচার্‌স/
ভ্যানগার্ড ফিল্ম্‌স
১৯৪৬ নটরিয়াস আরকেও রেডিও পিকচার্‌স/
ভ্যানগার্ড ফিল্ম্‌স
১৯৪৭ দ্য প্যারাডাইন কেইস ভ্যানগার্ড ফিল্ম্‌স
১৯৪৮ রোপ ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স/
ট্রান্সআটলান্টিক পিকচার্‌স
হিচককের প্রথম রঙিন চলচ্চিত্র। সত্য ঘটনা অবলম্বনে।
১৯৪৯ আন্ডার ক্যাপ্রিকর্ন ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স/
ট্রান্সআটলান্টিক পিকচার্‌স
১৯৫০ স্টেইজ ফাইট ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স
১৯৫১ স্ট্রেঞ্জার্‌স অফ এ ট্রেইন ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স প্যাট্রিসিয়া হাইস্মিথের উপন্যাস থেকে।
১৯৫৩ আই কনফেস ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স
১৯৫৪ ডায়াল এম ফর মার্ডার ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স
১৯৫৪ রেয়ার উইন্ডো প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স/
প্যাট্রন ইনক.
১৯৫৫ টু ক্যাচ আ থিফ প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স
১৯৫৫ দ্য ট্রাব্‌ল উইথ হ্যারি প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স/
আলফ্রেড জে হিচকক প্রোডাকশন্‌স
১৯৫৬ দ্য ম্যান হু নু টু মাচ প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স/
ফিলওয়াইট প্রোডাকশন্‌স
চলচ্চিত্রের দ্বিতীয় সংস্করণ
১৯৫৬ দ্য রং ম্যান ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্‌স একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে
১৯৫৮ ভার্টিগো প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স/
আলফ্রেড জে হিচকক প্রোডাকশন্‌স
১৯৫৯ নর্থ বাই নর্থওয়েস্ট মেট্রো-গোল্ডউইন-মেয়ার/
লুইস ইনকরপোরেটেড
১৯৬০ সাইকো[১] শ্যামলি প্রোডাকশন্‌স মূলত প্যারামাউন্ট পিকচার্‌স কর্তৃক বন্টিত। রবার্ট ব্লখের উপন্যাস অবলম্বনে।
১৯৬৩ দ্য বার্ডস ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স/
আলফ্রেড জে হিচকক প্রোডাকশন্‌স
দ্যফনে দ্য মঁরিয়ের উপন্যাস অবলম্বনে।
১৯৬৪ মেরিন ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স/
জিওফ্রি-স্ট্যানলি প্রোডাকশন্‌স
১৯৬৬ টর্ন কার্টেইন ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স
১৯৬৯ টোপাজ ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স লিয়ন উরিসের বই অবলম্বনে
১৯৭২ ফ্রেঞ্জি ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স
১৯৭৬ ফ্যামিলি প্লট ইউনিভার্সাল পিকচার্‌স হিচককের শেষ থিয়েটার ধরনের চলচ্চিত্র

টেলিভিশন পর্বসমূহ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "৫০ পেরল সাইকো"স্টার আনন্দ। নিউজ বুলেট। 28 March 2011। সংগৃহীত 2013-05-26