আলকুশি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আলকুশি
Mucuna pruriens
Mucuna-pruriens-fruit.jpg
Mucuna pruriens seed pod
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae
বিভাগ: Magnoliophyta
শ্রেণী: Magnoliopsida
বর্গ: Fabales
পরিবার: Fabaceae
উপপরিবার: Faboideae
গোত্র: Phaseoleae
গণ: Mucuna
প্রজাতি: M. pruriens
দ্বিপদী নাম
Mucuna pruriens
(L.) DC.
প্রতিশব্দ[১]
  • Carpogon capitatus Roxb.
  • Carpogon niveus Roxb.
  • Carpopogon capitatus Roxb.
  • Carpopogon niveum Roxb.
  • Carpopogon pruriens (L.) Roxb.
  • Dolichos pruriens L.
  • Macranthus cochinchinensis Lour.
  • Marcanthus cochinchinense Lour.
  • Mucuna aterrima (Piper & Tracy) Holland
  • Mucuna atrocarpa F.P.Metcalf
  • Mucuna axillaris Baker
  • Mucuna bernieriana Baill.
  • Mucuna capitata Wight & Arn.
  • Mucuna cochinchinense (Lour.) A.Chev.
  • Mucuna cochinchinensis (Lour.) A.Chev.
  • Mucuna deeringiana (Bort) Merr.
  • Mucuna esquirolii H. Lév.
  • Mucuna esquirolii H.Lev.
  • Mucuna hassjoo (Piper & Tracy) Mansf.
  • Mucuna hirsuta Wight & Arn.
  • Mucuna luzoniensis Merr.
  • Mucuna lyonii Merr.
  • Mucuna martinii H.Lev. & Vaniot
  • Mucuna minima Haines
  • Mucuna nivea (Roxb.) DC.
  • Mucuna nivea (Roxb.) Wight & Arn.
  • Mucuna prurita (L.) Hook.
  • Mucuna prurita Wight
  • Mucuna sericophylla Perkins
  • Mucuna utilis Wight
  • Mucuna velutina Hassk.
  • Negretia mitis Blanco
  • Stizolobium aterrimum Piper & Tracy
  • Stizolobium capitatum (Roxb.) Kuntze
  • Stizolobium cochinchinense (Lour.) Burk
  • Stizolobium deeringianum Bort
  • Stizolobium hassjoo Piper & Tracy
  • Stizolobium hirsutum (Wight & Arn.) Kuntze
  • Stizolobium niveum (Roxb.) Kuntze
  • Stizolobium pruriens (L.) Medik.
  • Stizolobium pruritum (Wight) Piper
  • Stizolobium utile (Wall. ex Wight) Ditmer
  • Stizolobium velutinum (Hassk.) Piper & Tracy

আলকুশি বা বিলাই খামচি (বৈজ্ঞানিক নাম: Mucuna pruriens), (ইংরেজি: Velvet bean, Cowitch, Cowhage, Kapikachu, Nescafe, Sea bean) হচ্ছে Fabaceae পরিবারের একটি উদ্ভিদ।

বিবরণ[সম্পাদনা]

আলকুশি একটি গুল্ম জাতীয় গাছ। এটি শিম পরিবারের একটি উদ্ভিদ। ফল অনেকটা শিমের মতো, ৪ থেকে ৬ টা বীজ থাকে। শুকনো ১০০টি বীজের ওজন হচ্ছে ৫৫-৮৫ গ্রাম।[২] এবং বীজগুলো ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র লোম দ্বারা আবৃত থাকে যা সহজেই পৃথক হয়ে যায়। এগুলি ত্বকের সংস্পর্শে এলে প্রচণ্ড চুলকানি সৃষ্টি করে। বানরের সঙ্গে এদের সম্পর্ক হল, যখন আলকুশি ফল পুষ্ট হতে থাকে তখন চুল্কানির ভয়ে বানরের দল ঐ এলাকা ছেড়ে চলে যায়, কারণ এর হুল বাতাসেও ছড়িয়ে পড়ে। বানরেরা ফিরে আসে যখন মাটিতে ফল পড়ে যায়। সেগুলো তারা খায় বিশেষ দৈহিক কারণে। কিছু আলকুশি আছে যার রোম নেই বললেই চলে সেটা কাকাণ্ডোল, Mucuna pruriens var. utilis নামি পরিচিত।

বোটানিক্যাল নামের Pruriens শব্দটি এসেছে ল্যাটিন ভাষা থেকে, যার অর্থ চুলকানির অনুভূতি। ফলের খোসা ও পাতায় আছে- সেরাটোনিন, যার কারণে চুলকানির উদ্রেক হয়। মধ্য আমেরিকায় আলকুশির বীচি আগুনে ভেজে চূর্ণ করা হয় কফির বিকল্প হিসেবে। এ কারণে ব্রাজিলসহ অন্যান্য দেশে এর প্রচলিত নাম হচ্ছে নেস ক্যাফে। গুয়েতেমালায় কেচি সম্প্রদায়ের মানুষ এখনও খাদ্যশস্য হিসেবে এটি আবাদ করে। সবজি হিসেবে রান্না হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Plant List: A Working List of All Plant Species"। সংগৃহীত 8 March 2015 
  2. "Factsheet - Mucuna pruriens"। www.tropicalforages.info। সংগৃহীত 2008-02-23