আতহার আলী খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আতহার আলী খান
Athar Ali Khan, 23 January, 2009, Dhaka SBNS.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
উচ্চতা ৬ ফুট ২ ইঞ্চি (১.৮৮ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরণ ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরণ ডানহাতি মিডিয়াম পেসার
কর্মজীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা - ১৯
রানের সংখ্যা - ৫৩২
ব্যাটিং গড় - ২৯.৫৫
১০০/৫০ - -/৩
সর্বোচ্চ রান - ৮২
বল করেছে - ৪২০
উইকেট -
বোলিং গড় - ৬০.৮৩
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ২/৩৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ২/-
উত্স: ক্রিকইনফো, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০০৬

আতাহার আলী খান বা আতহার আলী খান (জন্ম: ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬২) বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক বাংলাদেশী ক্রিকেটার। লম্বাটে গড়নের ক্রিকেট খেলোয়াড় আতহার আলী আশির দশকে মাঝারী সারির ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব ছিলেন। পরবর্তীতে ভারতীয় ব্যাটসম্যান ও বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেট কোচ মহিন্দর অমরনাথের পরামর্শক্রমে তিনি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে নিয়মিতভাবে মাঠে আবির্ভূত হন।[১] তিনি ধীরগতির মিডিয়াম পেসার হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেউইকেটও লাভ করেছেন।[২] বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নির্বাচক হিসেবে আসীন রয়েছেন। পাশাপাশি ক্রিকেটে ধারাভাষ্যকার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের অন্যতম দল দুরন্ত রাজশাহীর প্রধান কোচ।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৮৪ সালে বাংলাদেশের পক্ষ হয়ে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ান কাপে খেলেন। একবছর পর শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে ঢাকায় তিন-দিনের ম্যাচে অংশ নেন। এ সময়ে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন ও ১৯৮৪-৮৫ মৌসুমে জাতীয় ক্রিকেটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দলকে শিরোপা জয়ে সহায়তা করেন। নিজে ১৫৫ রান করেন ও তারিকুজ্জামান মুনিরের (৩০৮) সাথে রেকর্ডসংখ্যক ৪৪৭ রান তোলেন।।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

অক্টোবর, ১৯৮৮ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত উইলস এশিয়া কাপে বাংলাদেশের সেরা খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে ১৬, পাকিস্তানের বিপক্ষে ২২ এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৩০ রান করেন। ১৯৯০ সালে কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে অনুষ্ঠিত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অপরাজিত ৭৮ রান করেন। এতে তিনটি বিশাল ছক্কার মার ছিল। কিন্তু দল হেরে যায়। বিচারকদের বিবেচনায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার লাভ করেন।[৩]

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৮২ রান করেন পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৯৯৭ সালে। এ সময় দলীয় অধিনায়ক আকরাম খানের (৫৯) সালে শতরানের জুটি গড়েন।[৪] পরের বছর কেনিয়ার বিরুদ্ধে মোহাম্মদ রফিকের সাথে ১৩৭ রানের জুটি করেন। আতহার আলী করেন ৪৭ রান। এরফলে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো একদিনের আন্তর্জাতিকে জয়লাভের গৌরব অর্জন করে।[৫] ১৯৯৭ সালে মোহালিতে অনুষ্ঠিত ওডিআইয়ে ভারতের বিপক্ষে ৩৩ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট দখল করে নিজস্ব সেরা বোলিং করেন। খেলায় তিনি সৌরভ গাঙ্গুলীকেও আউট করেছিলেন।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. www.thedailystar.net
  2. Cricinfo Player Page: Athar Ali Khan:(Retrieved on 2007-12-25).]
  3. Cricinfo Scorecard: Bangladesh v Sri Lanka (1990-12-31), Retrieved on (2007-12-25).
  4. Cricinfo Scorecard: Bangladesh v Pakistan (1997-07-16), retrieved on (2008-01-27)
  5. scorecard: Bangladesh v Kenya (1998-05-17), Retrieved on (2008-01-27)
  6. Cricinfo Scorecard: Bangladesh v India (1998-05-14) Retrieved on (2008-01-27)