আজাদ হিন্দ ডাকটিকিট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আজাদ হিন্দের ডাকটিকিটে আজাদ হিন্দ পতাকা
পাঁচটি ভিন্ন নকশার আজাদ হিন্দ ডাকটিকিট। সর্বোচ্চ মূল্যের ১+২ টাকার ডাকটিকিটটি এখানে দেখানো হয়নি।

আজাদ হিন্দ ডাকটিকিট হল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর আজাদ হিন্দ কর্তৃক ১৯৪৩ সালে নাৎসি জার্মানিতে প্রকাশিত ছয়টি ভিন্ন নকশার প্রচারমূলক ডাকটিকিট।[১] ভারতীয় ডাক বিভাগ এই ছয়টি অব্যবহৃত আজাদ হিন্দ ডাকটিকিট ইন্ডিয়ান ফ্রিডম স্ট্রাগল থ্রু ইন্ডিয়া পোস্টেজ স্ট্যাম্প নামক স্মারক গ্রন্থের অন্তর্ভুক্ত করেন।[২]

নেতাজির পরিকল্পনা অনুসারে ওয়ার্নার ও মারিয়া ভন অ্যাক্সটার-হেউটলাস এই ডাকটিকিটগুলির নকশা প্রস্তুত করেছিলেন।[৩] এই নকশাগুলি ছিল:

  • ১+১ আনা – জার্মান এমজি৩৪ মেশিনগান থেকে গুলিবর্ষণরত শিখ সৈনিকের ছবি সহ।
  • ১/২ আনা, ১ আনা ও ২+২ আনা – লাঙল ও পশ্চাতে ভূমিকর্ষণরত কৃষকের ছবি সহ।
  • ২-১/২ আনা ও ২-১/২ + ২-১/২ আনা – ভারতীয় রমণী কর্তৃক চরখায় সুতো কাটার ছবি সহ।
  • ৩+৩ আনা – মুমূর্ষু সৈনিকের সুশ্রুষারত নার্সের ছবি সহ।
  • ৮+১২ আনা ও ১২ আনা + ১ টাকা – অখণ্ড ভারতের মানচিত্রের উপর ছিন্ন শিকলের ছবি সহ।
  • ১+২ টাকা – হিন্দু, মুসলমান ও শিখ সৈনিকের হাতে আজাদ হিন্দ পতাকার ছবি সহ।

বার্লিনের গভর্নমেন্ট প্রিন্টিং ব্যুরোয় ডাকটিকিটগুলি ছাপা হয়। কম দামের টিকিটগুলি প্রথমে দশ লক্ষ ও পরে আরও পাঁচ লক্ষ ছাপা হয়। ১ + ২ টাকার টিকিটগুলি তিনটি রং বৈচিত্র্যে মাত্র ১৩,৫০০টি ছাপা হয়েছিল। প্রতিটি মূল্যের ডাকটিকিট ভিন্ন ভিন্ন রঙে ছাপা হয়। ১ + ২ টাকার ডাকটিকিটটি বহুবর্ণ নকশায় ছাপা হয়। Mi. VII ১ টাকা + ২ টাকার নকশাতেও অনেকগুলি রং ব্যবহার করা হয়েছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Freeston, Andrew. The Azad Hind and Chalo Delhi Stamps of the Indian Legion and Indian National Army of Subhas Chandra Bose 1941-1945. Waikawa Beach, New Zealand: 1999, p.9.
  2. "Footprints of history" by S. Theodore Baskaran in The Hindu, 16 December 2000. Retrieved 30 December 2009.
  3. Freidman, Herbert A. "Azad Hind" and "Chalo Delhi" Stamps. Bombay: Jal Cooper, 1972, p.12.

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]