অম্ল মৃত্তিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

পিএইচ (pH)[সম্পাদনা]

অম্ল ও ক্ষারের জলীয় দ্রবণে হাইড্রোজেন আয়নের ঘনমাত্রা প্রকাশের জন্য pH স্কেল নামক একটি পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। দ্রবণে হাইড্রোজেন আয়নের ঘনমাত্রা বুঝাবার জন্য ব্যবহৃত সংকেত পিএইচ (pH)। ফরাসি শব্দ Pouvior Hydrogene অর্থাৎ হাইড্রোজেন শক্তি, সংক্ষেপে pH। পিএইচ-এর স্কেল ০ থেকে ১৪ পর্যন্ত বিস্তৃত। pH ৭-এর নিচে হলে দ্রবণটি অম্লীয়, ৭-এর উপরে হলে দ্রবণটি ক্ষারীয় এবং pH=7 হলে দ্রবণটি নিরপেক্ষ বা প্রশমিত দ্রবণ।

সংজ্ঞা ও বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

মৃত্তিকার পিএইচ মান ৭-এর কম থাকলে তাকে এসিড মৃত্তিকা বা অম্লমাটি (Acid soil) বলে। পরিবর্তনযোগ্য হাইড্রোজেনঅ্যালুমিনিয়াম আয়নের উপস্থিতির কারণে এই অম্লতা। এসিড মৃত্তিকায় হাইড্রক্সিল আয়নের তুলনায় হাইড্রোজেন আয়নের পরিমাণ বেশি থাকে। এই মাটির লবণ প্রধানত অ্যালুমিনিয়াম সালফেট ও ফেরাস সালফেট দ্বারা গঠিত। মাটির দ্রবণে হাইড্রোজেন যোগানের উৎসের মধ্যে রয়েছে অম্লযুক্ত মূল উপাদানসমূহ, উদ্ভিজ্জ সার, বৃক্ষমূল, কার্বন-ডাই-অক্সাইড, অ্যালুমিনো সিলিকেট, আয়রন পাইরাইটস এবং অ্যামোনিয়া সার। সাধারণত মৃদু ও মধ্যম এসিড মৃত্তিকা চাষাবাদের জন্য উত্তম।

শ্রেণিবিভাগ[সম্পাদনা]

মৃত্তিকার পিএইচ মানের উপর ভিত্তি করে এসিড মৃত্তিকার শ্রেণিবিভাগ:

  1. চরম (extremely) এসিডীয় (<4.5)
  2. অতি প্রবল (very strongly) এসিডীয় (4.5 - 5.0)
  3. প্রবল (strongly) এসিডীয় (5.1 - 5.5)
  4. মধ্যম (moderately) এসিডীয় (5.6 - 6.0) এবং
  5. মৃদু (slightly) এসিডীয় (6.1 - 6.5)

প্রাপ্তিস্থান[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের অধিকাংশ মৃত্তিকা অতি বৃষ্টিপাত ও চোয়ানের কারণে বিভিন্ন ক্রিয়া-বিক্রিয়ায় মৃদু থেকে মধ্যম অম্লতাবিশিষ্ট হয়। বাংলাদেশে ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং রাজশাহীর বরেন্দ্র অঞ্চলে এসিড মৃত্তিকা পাওয়া যায়। চরম ও প্রবল এসিড মৃত্তিকায় চা ভালো জন্মে। অম্ল মৃত্তিকায় চুন ব্যব হার করে পিএইচপি পরিবর্তন করা হয়।

তথ্যসূত্র:[সম্পাদনা]

  • বাংলাপিডিয়া
  • বিজ্ঞান বিশ্বকোষ
  • রসায়ন