অদ্ভুত বেগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভৌত বিশ্বতত্ত্বে অদ্ভুত বেগ (ইংরেজি ভাষায়: Peculiar velocity) বলতে পশ্চাদপসরণশীল ছায়াপথের এমন সব বেগকে বোঝায় যা হাবল নীতির মাধ্যমে ব্যাখ্যা করা সম্ভব না।

বিজ্ঞানী এডুইন হাবলের নীতি অনুসারে, আমাদের থেকে পেছনে সরে যাওয়া ছায়াপথগুলোর দ্রুতি আমাদের থেকে তাদের দূরত্বের সমানুপাতিক। অন্যান্য কোন ক্রিয়া না থাকলে দূরত্ব ও বেগের এই সম্পর্ক ঠিক এমনই হওয়ার কথা।

কিন্তু ছায়াপথগুলো মহাবিশ্বের সব স্থানে সমানভাবে বণ্টিত নেই। এরা গুচ্ছে গুচ্ছে বিভক্ত। এসব ছায়াপথ গুচ্ছকে বলে স্তবক। একেকটি ছায়াপথ-স্তবকে কয়েক ডজন থেকে শুরু করে কয়েক হাজার ছায়াপথ থাকতে পারে। কোন একটি স্তবকের মধ্যে অবস্থিত এসব ঘন সন্নিবিষ্ট ছায়াপথেরা একে অপরের উপর মহাকর্ষীয় বল প্রয়োগ করে। এই বল এতই শক্তিশালী যে এর কারণে কোন একটি ছায়াপথ সর্বোচ্চ ১,০০০ কিমি/সেকেন্ড দ্রুতি অর্জন করতে পারে, যেকোন দিকে। তাই হাবল নীতিতে আমরা যে অরীয় বেগ হিসাব করি তার সাথে এই বেগ যোগ বা তা থেকে এটা বিয়োগ করতে হবে। নয়ত সঠিক ফলাফল পাওয়া যাবে না। ছায়াপথের দূরত্ব নির্ণয় করতে গিয়ে এই ক্রিয়া থেকে উদ্ভূত ফলাফল হিসাবে আনতে হবে। এটাকে বলা যায় এক ধরণের ত্রুটি সংশোধনী (error correction)। ছায়াপথগুলোর মোট দ্রুতি যত বাড়ে এই ত্রুটির পরিমাণও তত কমে আসে, কারণ সেক্ষেত্রে দূরত্ব বেড়ে যায়।

তবে আরও শুদ্ধ একটি হিসাব আছে। স্তবকের মধ্যকার সবগুলো ছায়াপথের দ্রুতির গড় নিলে অদ্ভুত বেগগুলো একে অপরকে বাতিল করে দেবে। যার ফলে গড় দ্রুতির মাধ্যমেই প্রায় শুদ্ধ ফল লাভ সম্ভব।

উল্লেখ্য, এই অদ্ভুত বেগের কারণেই লোহিত সরণ জগতে ব্যত্যয় (Redshift space distortions) দেখা যায়। যেকোন বিশ্বতাত্ত্বিক গণনার ক্ষেত্রে এই লোহিত সরণ জগতের ব্যত্যয় গণনা আবশ্যক।